রাজশাহীতে কলাগাছ লাগাতে গিয়ে মিললো মূর্তি, এলাকায় চাঞ্চল্য

দুর্গাপুর প্রতিনিধি, রাজশাহী

দুর্গাপুর উপজেলার পানানগর ইউনিয়নের বিয়াড় গ্রামে একটি পুকুর ভরাট করে কলাগাছের বাগান বানানো হয়। পাশের একটি পুকুরের থেকে আনা হয় মাটি। সেই মাটির ভেতরেই মেলে একটি পোড়ামাটির মূর্তি। মূর্তিটি দেখতে ভীড় জমায় স্থানীয়রা, শুরু হয় নানা জল্পনা-কল্পনা। মূর্হুতেই হই চৈই পড়ে যায় পুরো এলাকায়।

বুধবার (১৯ মে) মূর্তিটি আনিছুর রহমান নামের এক ব্যক্তি পান। পরে তিনি ৯৯৯ কল করে পুলিশে অবহিত করেন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মূর্তিটি উদ্ধার করে থানা হেফাজত নেয়।

মূর্তিটি উদ্ধার কাজে নিয়োজিত পুলিশের এসআই মো. জিল্লুর রহমান বলেন, ‘এটি একটি পোড়ামাটির মূর্তি, তেমন মূল্যবান কিছুই না। উপজেলার বিয়াড়গ্রামের আনিছুর রহমান নামের এক ব্যক্তির কলা বাগানে মাটির ভেতর মূর্তিটি দেখতে পান। বিষয়টি জানাজানি হলে তাৎক্ষণিকভাবে পোড়ামাটির মূর্তিটি দেখতে অনেক মানুষের সমাগম ঘটতে থাকে এবং নানা জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়। পরে আনিছুর পুলিশে খবর দিলে তা উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়।’

এবিষয়ে দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাশমত আলী বলেন, ‘মূর্তিটি গতকাল উদ্ধার হয়েছে। আর এব্যাপারে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করা হয়েছে। আইন অনুযায়ী পোড়ামাটির মূর্তিটি আদালতের মাধ্যমে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের জমা দেওয়া হবে। প্রত্নতত্ত্ববিদরাই ভালো বলতে পারবেন এর মূল্যমান।’

এই সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on Whatsapp
Whatsapp
Pin on Pinterest
Pinterest

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *