পুঠিয়ার-বানেশ্বরে জমজমাট ঈদের বাজার, করোনার আতঙ্গ নেই কারো!

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি

রাজশাহীর পুঠিয়ায় করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে খুলে দেয়া হয়েছে দোকাপাট ও মার্কেট। দীর্ঘদিন দোকানপাঠ বন্ধ থাকা ও ঈদের কেনা-কাটা করতে দোকানে দোকোনে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে। কিন্তু স্বাস্থ্য বিধির বিষয়টি ছিল একে বারেই নড়বড়ে।

গত ৮ মে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় রাজশাহী থেকে এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দোকানপাঠ, বিপনি বিতান, শপিংমল খোলার নির্দেশনা জারি করেন। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত নির্দেশনা মেনে দোকানপাঠ ও মার্কেট খোলার কথা বলেন।

কিন্তু সোমবার দ্বিতীয় দিনও কোন দোকান ও মার্কেটে নির্দেশনা মানতে পারেননি দোকানীরা। তবে, কিছু সংখ্যক দোকান মালিক ও দোকানের কর্মচারীদেরকে মাস্ক ও হ্যান্ডগ্লভস পরতে দেখা গেছে। কিন্তু দুই চারটা দোকানে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করাতে দেখা গেলেও সামনে সতর্কীকরণ ব্যানার ছিলো না কোন দোকানেই। বিক্রেতা ও ক্রেতাদের মধ্যে কোন ধরনের সামাজিক দূরত্ব রাখতেও দেখা যায়নি। একে অপরের গায়ে গা লাগিয়ে কেনাকাটা করছেন।

১০ মে রবিবার সকাল ১০টা থেকে দোকানপাট খুলবে জানিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর থেকেই সকাল ৯টা না বাজতেই উপজেলার বানেশ্বরে দোকানপাটের সামনে জড়ো হতে থাকে ক্রেতারা। সকাল ১০টার দিকে বানেশ্বর হাটের মধ্যে নিজা বাজারে কাপড়ের দোকানের সামনের প্রধান সড়কে রীতিমতো জ্যামের সৃষ্টি হয় মানুষের ভিড়ে তবে বেশির ভাগ ক্রেতায় মহিলা।

এ নিয়ে পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: ওলিউজ্জামান বলেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্য বিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত আকারে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সকল ধরনের দোকানপাট ও মার্কেট খোলা যাবে। যদি কেউ নির্দেশনা না মানে তবে, ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Pin on Pinterest
Pinterest

Leave a Reply

Your email address will not be published.