গোদাগাড়ীতে সেনাবাহিনীর পক্ষে শুকনো খাবার বিতরণ

অগ্নিবাণী ডেস্ক

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে করোনা প্রভাবে খাদ্য কষ্টে ভোগা মানুষদের মাঝে শুকনো খাবার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

রোববার তিনব্যাপী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় রাজশাহী সেনানিবাসের সদস্যরা এ কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এদিন সন্ধ্যায় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে প্রেরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কোভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাস সংক্রমণে ফলে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে সেনাসদর এর নির্দেশক্রমে আর্মি ট্রেনিং এন্ড ডকট্রিন কমান্ড (আর্টডক) এর অন্তর্ভুক্ত বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টাল সেন্টারের পক্ষ থেকে বেসামরিক প্রশাসনকে সহযোগিতার পাশাপাশি দরিদ্র ও দুঃস্থ জনসাধারণের জরুরী সাহায্য হিসাবে বিভিন্ন প্রকার ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

এরই অংশ হিসেবে রোববার রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী থানার আওতাধীন তেরপাড়া, ধইসিপুর, ধননজয়, ধনজিপুর, ধরজয়পুর, দিগ্রাম, ধনচাঁনপুর, আমতলী গ্রামে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সচেতনতার অংশ হিসেবে সরকারী নির্দেশনা মতো ঘরে থাকা কর্মহীন অসহায়, দুঃস্থ ও গরীব জনসাধারণের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

এছাড়াও সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃদ্ধ ও সহায়সম্বলহীন পরিবারকে নিয়মিতভাবে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান অব্যাহত রয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়, আর্তমানবতার সেবায় বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টাল সেন্টার কর্তৃক রাজশাহী জেলার বিভিন্ন গ্রাম/শহর অঞ্চলে দরিদ্র পরিবারের মাঝে এই শুকনো খাদ্য ও অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

ইতিমধ্যে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে সর্বমোট ৬১৫টি পরিবারকে ৪হাজার ৭৫ কেজি চাউল, এক হাজার ২৩০ কেজি আটা, ৬১৫ কেজি তৈল, ৫’শ সাড়ে ৫৭ কেজি চিনি, ৬১৫ কেজি ডাল ও ৩‘শ সাড়ে ৭ কেজি লবণ বিতরণ করা। হয়েছে।

করোনার দূর্যোগকালীন সময়ে দরিদ্র পরিবার সমূহকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এসকল মানবিক সহায়তা কার্যক্রম চলমান থাকবে বলেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Pin on Pinterest
Pinterest

Leave a Reply

Your email address will not be published.