আমি নাকি মৌলভী হয়ে গেছি: শামীম ওসমান

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, অনেকে বলে আমি নাকি মৌলভী হয়ে গেছি আসলে তা না। আমি আল্লাহকে বেশী ভালোবাসি। আর সব ধর্মকে সম্মান করি। তিনি বলেন, মানুষ যদি প্রপারলি কোরআন পড়তো আর হাদিসকে ফলো করতো তাহলে এখন ইসলামের নামে যে ধ্বংসলীলা চলছে তা হতো না।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের নিউ সমবায় ভবনে স্বাধীনতা চিকিৎসা পরিষদ (স্বাচিপ) নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর নাম উল্লেখ করে শামীম ওসমান বলেন, উনার মতো আল্লাহ ওয়ালা আমি খুবই কম দেখেছি। আমার জীবন ধন্য হয়ে গেছে বাবা মায়ের পর তার (প্রধানমন্ত্রী) সহচার্য পেয়ে। এ সময় তিনি ‘সহজ কোরআন’ নামে ধর্মীয় গ্রন্থ দেখিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের সংসদ সদস্যদের এ পবিত্র গ্রন্থ দিয়েছেন পড়ার জন্য।

শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জের পত্রিকা ও অনলাইনে আমি দেখেছি আমার মতো হয়তো কেউ একজন এমন কিছু বক্তব্য দিয়েছেন যিনি নিজেও পেশায় ডাক্তার। তিনি এমন কিছু বক্তব্য দিয়েছেন, যে কারণে স্বাচিপের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ হয়তোবা নিজেদের অবাক করেছে।

আমি দুঃখিত নারায়ণগঞ্জের কেউ যদি কোন কিছু বলে থাকে আর উনি যদি পেশায় ডাক্তার হন তাহলে আমার কিছু বলার নাই। যদি বলে থাকেন নারায়ণগঞ্জের একজন বাসিন্দা হিসেবে আমি আপনাদের সকলের কাছে স্বাচিপের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছে নারায়ণগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। ব্যক্তিবিশেষের কথায় আপনারা নারায়ণগঞ্জবাসীকে খারাপ দৃষ্টিকোণ থেকে দেখবেন না এটি প্রার্থনা করি।

শামীম ওসমান বলেন, আশা করি আপনারা কারো ব্যক্তিগত বক্তব্যের কারণে নারায়ণগঞ্জবাসীকে ভুল বুঝবেন না। নারায়ণগঞ্জবাসী জানে কীভাবে মানুষকে সম্মান করতে হয়, নারায়ণগঞ্জবাসী জানে কীভাবে মানুষকে মূল্যায়ণ করতে হয়।

শামীম ওসমান আরো বলেন, একটি কথা বলতে চাই, স্বাচিপের কেন্দ্রীয় সভাপতিকে আমরা অনেক সম্মান করি। চিকিৎসাসেবার চেয়ে আর বড় কোন সেবা হতে পারে না। আপনারা সেই শ্রেণি পেশার মানুষ। আমি স্বাচিপের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছে নারায়ণগঞ্জের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাচ্ছি। নারায়ণগঞ্জবাসীর অভ্যাস আথিতিয়তা করার।

স্বাচিপের সভাপতির কথা দ্বারা আমি পরিস্কার হলাম স্বাচিপের কমিটি করার ব্যাপারে আমাদের কোন এখতিয়ার নেই। যাদেরকে নেতৃত্ব দেয়ার এখতিয়ার তারাই কমিটি করবেন। স্বাচিপের সভাপতি বিস্মিত ও অবাক হয়েছেন, যখন অন্য কেউ স্বাচিপের ব্যানারেই অনুষ্ঠান করেছে। যারা করেছে তারা ছোট মানুষ এমন সব জায়গাতেই থাকে। স্বাচিপের নেতৃবৃন্দের কাছে অনুরোধ করবো, স্বাচিপ আপনারা করেছেন স্বাধীনতার পক্ষের যে চিকিৎসক আছেন তাদের ঐক্যবদ্ধ করেছেন। এর কারণ আপনারা নিজেদের স্বার্থে নয়, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সোনার মানুষ তৈরি করেছেন।

উল্লেখ যে, স্বাচিপের নারায়ণগঞ্জের দু’টি কমিটি রয়েছে। একাংশ বুধবার ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে সেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন মেয়র আইভী।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Pin on Pinterest
Pinterest

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *